Water for Life

কিভাবে জানবেন আপনার খাবার পানি সঠিক কি না, নিজেই পরীক্ষা করুন আপনার পান করার পানি

পানি মূলঃত হাইড্রোজেন ও অক্সিজেন, এ দুটি উপাদানের সমন্বয়ে তৈরি হয়। এর রাসায়নিক সংকেত H2O অর্থাৎ পানির প্রতিটি অণুতে দুটি হাইড্রোজেন পরমাণু ও একটি অক্সিজেন পরমাণু থাকে। বেঁচে থাকতে পানি ছাড়া বিকল্প নেই। এ কারণেই বলা হয় পানির অপর নাম জীবন।

Asian female drinking water AdobeStock 192899502
Drinking Water

আমাদের খাবার পানি বা পান করার পানি সাধারনত একটি খনিজ পদার্থ। খনিজ পদার্থ এই কারনেই বলছি, আমরা যে পানি পান করি তা সর্বদা মাটির নিচে থেকেই উত্তলন করা হয়, তারপর পান করা হয়। যেহেতু পানি মাটির নিচ থাকে, সেহেতু পানিতে খনিজ পদার্থ মিশ্রিত থাকে। যেমন- মিনারেল, আইরন, ক্যাডমিয়াম, লিড, ক্লোরিন, নাইট্রেট, ম্যাঞ্জানিজ, ইত্যাদি অসংখ খনিজ পদার্থ মিশ্রিত থাকে। কিন্তু এগুলি সব স্থানের পানিতে সমান ভাবে থাকে না। আমাদের উচিত এগুলি পরীক্ষা করে তারপর পান করা। কিন্তু এই সবগুলি খনিজ পরীক্ষা করে সঠিক পানি বাছাই করা অনেক কষ্টসাধ্য ও ব্যয়বহুল।

চলুন জানা যাক পানিতে কি কি থাকা উচিৎ আর কি কি থাকা উচিৎ না।

প্রয়োজনীয় উপাদানঅনুপাত
TDS (Total Dissolved Solid)< 200 PPM
Cadmium < 0.002 mg/L
Lead<0.005 mg/L
Chloride<50mg/L
Nitrate<1.5mg/L
Manganese<0.05 mg/L
pH=6.4 to 8

যা যা থাকা উচিৎ নয়Arsenic, Nitrite, Cyanide, Markery

যেহেতু সবগুলি প্যারামিটার পরিমাপ করে পানি পান করা অসম্ভব তাই, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তথ্য মতে পানির টিডিএস পরিমাপ করে মোটামুটি সিদ্ধান্তে আসা যায় যে পানি খাবার উপযোগী কি না। এই টিডিএসের মানের উপর পানির স্বাধ অনেকটা নির্ভর করে। অর্থাৎ টিডিএসের মানের পরিবর্তনের ফলে পানির স্বাধও পরিবর্তিত হয়।

পান করার পানির TDS কত থাকা উচিৎ?

TDS (Total Dissolved Solid ) হচ্ছে পানির পরিচ্ছন্নতার নির্দেশক। প্রতি এক লিটার পানিতে কত মিলিগ্রাম দ্রব্য কঠিন পদার্থ দ্রবীভূত আছে তা TDS দিয়ে প্রকাশ করা হয়। যত কম টিডিএস, পানি ততই পরিস্কার। TDS এর একক ppm। 1 ppm = 1mg/Liter. নিচের চার্টের সাথে মিলিয়ে আমরা টিডিএস নির্নয় করে বুঝতে পারি আমাদের খাবার পানি কতটা বিশুদ্ধ।

  • TDS 0-50 ppm হলো micro-filtered এবং distilled water. US EPA’s TDS chart অনুসারে।
  • 0-50 ppm is considered micro-filtered and distilled water. পানির TDS 30ppm নীচে হলে মানব স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর কারন এ পানিতে আমাদের শরীরের জন্য প্রয়োজনীয় খনিজ পদার্থ যথেষ্ট নেই।
  • TDS 50 – 170ppm Carbon filtered, mountain spring or aquifers water
  • TDS 170 – 200ppm Hard Water – সীমিতভাবে গ্রহনযোগ্য সীমার পানি
  • TDS 200 – 400ppm উচ্চমাত্রার TDS পানি যা tap or mineral spring থেকে পাওয়া যায়।
  • সাধারনত কলের পানি বা tap water TDS content 170-400 এর মধ্যে। 170 ppm এর উর্ধের পানিকে hard water বলে।
  • US EPA’s এর সর্বোচ্চ দূষণমাত্রা ধরা হয় (contamination level) >500 ppm হলে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রতিবেদন অনুযায়ী নিম্নে একটি চার্ট দেওয়া হলোঃ

Level of TDS [(Milligrams per Liter) (PPM)]Rating
Less than 300Excellent
300-600Good
600-900Fair
900-1200Poor
Above 1200Unacceptable
WHO Report

উপরের চার্ট থেকে আমরা ক্লিয়ার দেখতে পাচ্ছি যে আমাদের খাবার পানির টিডিএস কত থাকা উচিৎ। যেহেতু উৎকৃষ্ট পানির টিডিএস ৩০০ পিপিএম – এর নিচে থাকলে খাবার জন্য উপযুক্ত তাই আমাদের পানির TDS ৩০০ এর নিচে রাখাই বুদ্ধিমানের কাজ হবে। এখন আসি আসল কথায় পানির টিডিএস কেমনে নির্নয় করবেন ? বাজারে অসংখ্য ব্রান্ডের, অসংখ্য ধরনের এবং বিভিন্ন দামের টিডিএস (TDS Meter) মিটার পাওয়া যায়। একটু ভালো মানের টিডিএস মিটার নিয়ে খুব সহজেই ঘরে বসেই আমাদের খাবার পানির টিডিএস নির্নয় করতে পারি আর বেছে নিতে পারি উপযুক্ত খাবার পানি।

তাহলে চলুন জেনে নেয়া যাক খাবার পানির টিডিএস নির্নয় পদ্ধতিঃ

প্রয়োজনীয় উপকরন: পানি, কাঁচের গ্লাস, টিডিএস মিটার।

প্রথমে, যে পানির TDS নির্নয় করতে হবে তা একটি কাঁচের গ্লাসে নিয়ে তাতে একটি টিডিএস মিটার চালু করে সামান্য পরিমানে ডুবাই, এরপর টিডিএস মিটারের রিডিং দেখি। এখান থেকে আমরা টিডিএস এর মান পেয়ে যাবো।

TDS meter for TDS Testing
TDS meter for TDS Testing

উপরোক্ত আলোচনা থেকে আমরা বুঝতে পারলম যে, ‍যদি আমাদের পানির টিডিএস ৩০০ পিপিএম এর কম হয় তবে সেই পানি পান করতে পারি। তবে পান করার আগে অবশ্যয় দেখে নিতে হবে যে, পানির কোন গন্ধ আছে কিনা।

পুরো বিষয়টি আরও ভালোভাবে বুঝতে নিচের ভিডিওটি দেখুন:

Related posts

Leave a Comment